অভিশংসন নিয়ে হতাশায় ভুগছেন ট্রাম্প

অভিশংসন নিয়ে হতাশায় ভুগছেন ট্রাম্প

অনলাইন ডেস্ক> যুক্তরাষ্ট্রের কংগ্রেসের নিম্নকক্ষ প্রতিনিধি পরিষদে ডেমোক্রেটিক সদস্যদের অভিশংসন তদন্তের শুনানি নিয়ে হতাশায় ভুগছেন দেশটির প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প।
এক সপ্তাহ ধরে তার বিরুদ্ধে বেরিয়ে আসছে নাটকীয় সব ঘটনা। এর সঙ্গে জড়িত যুক্তরাষ্ট্রের বর্তমান এবং সাবেক প্রশাসনিক কর্মকর্তা ও কূটনীতিকদের সাক্ষ্য নেওয়া হয়েছে। এসব দেখে হতাশ ও ক্ষিপ্ত ট্রাম্প।
শুক্রবার (২২ নভেম্বর) এক সাক্ষাৎকারে তিনি জানান, অভিশংসন তদন্তকে স্বাগত জানালে ক্ষমতার অপব্যবহারের যে অভিযোগ তার বিরোধী শিবিরের ‘ভ্রান্ত’ ও ‘দুর্নীতিগ্রস্ত’ সদস্যরা এনেছেন, তাতে তিনি পাত্তা দিচ্ছেন না।
ফক্স নিউজের সঙ্গে টেলিফোন সাক্ষাৎকারে এফবিআই, তার রাজনৈতিক উপদেষ্টা এবং অভিশংসন তদন্তের উদ্যোক্তা নেতাদের বিরুদ্ধে গভীর ক্ষোভ ও উষ্ফ্মা প্রকাশ করেছেন তিনি। ট্রাম্প বলেন, তারা অসুস্থ। তাদের মনমানসিকতা নোংরা। ফপ অ্যান্ড ফ্রেন্ডসের দীর্ঘ ৫৩ মিনিটের সকালের অনুষ্ঠানে তিনি বলেন, আমি তাদের বিচার চাই।
রাজনৈতিক প্রতিপক্ষ জো বাইডেন ও তার ছেলের বিরুদ্ধে দুর্নীতির অভিযোগে তদন্ত করতে ইউক্রেনের প্রেসিডেন্টের ওপর চাপ সৃষ্টির অভিযোগে ডেমোক্র্যাটরা ট্রাম্পের বিরুদ্ধে অভিশংসন তদন্ত চালাচ্ছেন। এই প্রক্রিয়ায় ট্রাম্পের প্রেসিডেন্সি এখন রীতিমতো হুমকির মুখে। তদন্তের অংশ হিসেবে শুনানি কার্যক্রমে অংশ নেন সংশ্নিষ্ট কর্মকর্তারা। তারা শপথ করে বলেছেন, ইউক্রেনকে সামরিক সহায়তা প্রদানসহ অন্যান্য সুযোগ-সুবিধা দেওয়ার প্রলোভন দেখিয়েছেন ট্রাম্প। শর্ত একটাই- তার রাজনৈতিক প্রতিপক্ষ ডেমোক্র্যাট প্রার্থী জো বাইডেনের বিরুদ্ধে দুর্নীতির অভিযোগ আনতে হবে ইউক্রেনকে। তবে ইউক্রেন তার প্রস্তাবে রাজি হয়নি।
তবে এসব সাক্ষ্য-প্রমাণেও রিপাবলিকানরা ট্রাম্পের ব্যাপারে নীরব। আর তাতে উৎসাহিত ট্রাম্প। সব সাক্ষ্যপ্রমাণকে নেহাত ‘বাজে’ বলে মন্তব্য করে ট্রাম্প বলেছেন, আমি তাদের বিচার চাই।